হাতিয়া উপজেলা নির্বাচনে তারুণ্যের পদধ্বনি

0
163

মোঃমামুনুর রহমানঃ ইতোপূর্বে নির্বাচন কমিশন আলাদা আলাদা তপশীলের মাধ্যমে সারাদেশে কয়েক ধাপে আসন্ন উপজেলা নির্বাচন অনুষ্ঠানের ঘোষণা দিয়েছে। নোয়াখালীর বিচ্ছিন্ন দ্বীপ হাতিয়া উপজেলায় এবারের নির্বাচন অনেকটা তরুণদের অংশগ্রহণে তরুণ বান্ধব হবে বলে শোনা যাচ্ছে ।  নির্বাচনে নতুন মুখের মধ্যে সাদা মনের মানুষ হাতিয়ার সম্ভ্রান্ত জমিদার আজহার উদ্দিন মিয়া পরিবারের সন্তান সাবেক ছাত্র নেতা এ.কে.এম আমজাদ উদ্দিন সাফদারের নাম আসছে। তার বাবা হাতিয়া ০৩ নং ইউনিয়নের কয়েক বার র্নিবাচিত সফল চেয়ারম্যান ছিলেন । নবীর উদ্দিন সাফদার হাতিয়া দ্বীপের রাজনীতিতে একজন সর্বজন শ্রদ্ধেয় ব্যক্তিত্ব। হাতিয়ার প্রাচিন কাল থেকে

শিক্ষা,সংস্কৃতি, ,খেলাধুলা ধর্মীয় কাজে আজহার উদ্দিন মিয়া পরিবারের অবদান অপরিসিম।এ জমিদার পরিবার হাতিয়ায় জন্ম না নিলে হাতিয়ার শিক্ষা ব্যবস্থা ২০০বছর পিছিয়ে থাকত তথ্য সূত্র তিলত্তমা হাতিয়া। এযাবত কাল ১০০ টির ও বেশি মসজিদ,২০ টির ও বেশি প্রাথমিক বিদ্যালয়,২ টি উচ্চ বিদ্যালয় এবং একটি বিএ মাদ্রাসা সহ অনেক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অবদান রেখেছে জমিদার আজহার উদ্দিন মিয়া ও তাঁর বংশের কর্নধারেরা ।

 

সেই সুবাদে সর্বস্তরের হাতিয়াবাসীর কাছে জমিদার আজহার মিয়ার পুত্র নবীর উদ্দিন সাফদার ও তাঁর সন্তানদের গ্রহণযোগ্যতা অন্যরকম। এ.কে.এম আমজাদ উদ্দিন সাফদার হাতিয়া উপজেলায় ইতোপূর্বে উপজেলা ছাত্রদলের সহ-সাধারণ সম্পাদক ও সর্বশেষ উপজেলা ছাত্রদলের যুগ্ম আহ্বায়ক হিসেবে রাজনৈতিক কর্মকান্ডে অত্যন্ত দক্ষতা ও যোগ্যতার পরিচয় দিয়ে সর্বস্তরের নেতাকর্মীর ভালবাসা অর্জনে করে বর্তমানে হাতিয়া উপজেলা বিএনপি’র ছাত্র বিষয়ক সম্পাদক তিনি । হাতিয়া উপজেলার আসন্ন নির্বাচনে তার অংশগ্রহণের বিষয়ে এ.কে.এম আমজাদ উদ্দিন সাফদারের সাথে সাক্ষাৎ করা হলে তিনি এই প্রতিবেদককে জানান, দলীয় নেতাকর্মীদের অকৃত্রিম ভালবাসা এবং হাতিয়াবাসীর আগ্রহের সাথে মিল রেথে আমার র্পূব পুরুষের মত হাতিয়া বাসীর কল্যানে মন মানসিকতা বুকে ধারন করে আসন্ন হাতিয়া উপজেলা নির্বাচনে চেয়ারম্যান হিসাবে প্রার্থী হওয়ার বিষয়ে দলীয় সিদ্ধান্তের প্রতি সম্মান রাখা এবং হাতিয়াবাসীর দোয়া ও ভালবাসায় নিয়ে এগিয়ে যাওয়াই আমার লক্ষ্য।