ভিন্ন খবর | ইবিডি নিউজ

ভিন্ন খবর

ব্যাংককে ভালোবাসার সমাধিমন্দির

ব্যাংককে ভালোবাসার সমাধিমন্দির

অনলাইন প্রতিবেদক
পৃথিবীতে মাজারের সংখ্যা সবচেয়ে বেশি এশিয়ায়। আর এশিয়ার মধ্যে সবচেয়ে বেশি মাজার মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলোতে। এই মাজারগুলোকে কেন্দ্র করে নানান গল্প-সাহিত্য রচনা হয়েছে বিভিন্ন সময়। সেই ওমর খৈয়ামের সময় থেকে শুরু করে খাজা চিশতির আমলেও গল্পের কমতি নেই। প্রতিবছর বিপুল সংখ্যক মানুষের সমাগম হয় এই মাজারগুলোতে। ভক্তের সামগমকে কেন্দ্র করে কিছু কিছু মাজারকে আবার জাগরুক মাজার নামেও অভিহিত করা হয়। যেমন এশিয়ার দেশ বাংলাদেশের সিলেটের শাহজালাল মাজারকে বেশ জাগরুক মাজার হিসেবে ধরা হয়। ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে মানুষ এখানে আসে তাদের মনোবাসনা নিয়ে। কিন্তু এই এশিয়ারই শহর ব্যাংককে এমন একটি মাজার আছে যা কোনো ধর্মগুরুর নামে বা ধর্মকে কেন্দ্র করে সৃষ্টি হয়নি। একে বলা হয় ভালোবাসার মাজার। প্রতিদিন অগুনতি মানুষ আসেন এই মাজারে তাদের মনোবাসনা নিয়ে। তবে অন্যান্য মাজারের সঙ্গে এই মাজারের পার্থক্য হলো, অন্য মাজারে মানুষ বৈষয়িক চাহ
মহাসড়কেই রান্না-খাওয়া পাঠদান!

মহাসড়কেই রান্না-খাওয়া পাঠদান!

ডেস্ক নিউজ
আবারো চমক দেখা গেলো বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা রংপুর বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক অধ্যক্ষ আসাদুল হাবিব দুলুর জেলা লালমনিরহাটে। দলীয় প্রধান বেগম খালেদা জিয়ার অবরুদ্ধ রাখার প্রতিবাদে এমন চমক দেখিয়েছে জেলা নেতারা। মঙ্গলবার সকাল থেকে রংপুর-কুড়িগ্রাম-লালমনিরহাট মহাসড়কের শিমুলতলায় অবস্থান নেয় হাজার হাজার নেতাকর্মী। অধ্যক্ষ আসাদুল হাবিব দুলুর নেতৃত্বে বিএনপির হাজার হাজার নেতাকর্মী ও সমর্থক লালমনিরহাট সদর উপজেলার বড়বাড়ি ইউনিয়নের শিমুলতলায় এসে মহাসড়ক অবরোধ করে। এসময় তারা মহাসড়কের এক কিলোমিটার এলাকাজুড়ে তৈরি করে অস্থায়ী বসতবাড়ি। অনেকেই তাদের স্ত্রী-সন্তান নিয়ে ব্যতিক্রমী এ অবরোধ কর্মসূচিতে যোগ দেন। বিপুল সংখ্যক নারী রান্নার সামগ্রী সঙ্গে নিয়ে এসে মহাসড়কের উপরেই রান্নার কাজ শুরু করে দেয়। দুপুরের খাবারের আয়োজন করেন নারী নেত্রীরা। একই সময়ে স্কুলের শিক্ষার্থীরা বইখাতা সঙ্গে নিয়ে ওই কর্মসূচিতে যোগ দেয়। শুর
মাজার থেকে নিয়ে যৌনপল্লীতে বিক্রি

মাজার থেকে নিয়ে যৌনপল্লীতে বিক্রি

ডেস্ক নিউজ
মাজার থেকে এক তরুণীকে চাকরি দেয়ার কথা বলে নিয়ে এসে বিক্রি করা হলো যৌনপল্লীতে। শুধু তাই নয়, সেখানে দু’মাস আটকে রেখে যৌনকাজে বাধ্য করার পর ভারতে পাচার করা হচ্ছিল তাকে। অবশেষে ওই তরুণী পালিয়ে এসে আশ্রয় নিলেন পুলিশের কাছে। ওই তরুণী (২০) এখন যশোর কোতোয়ালি থানা পুলিশের হেফাজতে আছেন। তার বাড়ি নারায়নগঞ্জ জেলায়। পালিয়ে আসা তরুণী জানান, তার বাব নেই। মা ও এক ভাই আছে। মা গার্মেন্টসে চাকরি করেন। প্রায় দু’মাস আগে তিনি ঢাকার মিরপুরের এক মাজারে আসলে সোনিয়া নামে এক নারীর সঙ্গে তার পরিচয় হয়। ওই নারী গার্মেন্টসকর্মী পরিচয় দিয়ে তাকে চাকরি পাইয়ে দেওয়ার প্রতিশ্রুতিতে যশোরে নিয়ে আসে। এখানে মোমিন নামে এক যুবকের কাছে হস্তান্তর করার পর সে তরুণীকে মাড়োয়ারি মন্দিরে যৌনপল্লীতে বিক্রি করে চলে যায়। এখানে এক নম্বর গলির সর্দারনী মিলির অধীনে তাকে যৌনকাজে বাধ্য করা হয়। তিনি আরও জানান, গত দু’মাস তাকে শারীরিকভাবেও ন
আমাজনের জঙ্গলে বাংলাদেশি তরুনীর বিয়ে

আমাজনের জঙ্গলে বাংলাদেশি তরুনীর বিয়ে

ebdnews
আমাজনের জঙ্গলে এক উপজাতিকে বিয়ে করে হৈ চৈ ফেলে দিয়েছেন বাংলাদেশি এক বৃটিশ তরুনী। বিশ্ব মিডিয়ায় এই যুবতীকে নিয়ে চলছে তোলপাড়। তার নাম সারাহ বেগম। তিনি বৃটিশ নাগরিক। তার পিতামাতা বা দেশে গ্রামের বাড়ি কোথায় তা জানা যায় নি। তিনি প্রামাণ্য চিত্র নির্মাণ করেন। এমন মিশন নিয়ে গিয়েছিলেন আমাজন জঙ্গলে। সেখানে তিনি যে কাহিনীর জন্ম দিলেন সে কারণেই তিনি বিশ্বজুড়ে আলোচনা-সমালোচনার পাত্রী। ওই জঙ্গলে গিয়ে তিনি তার চেয়ে বয়সে অনেক বড় এক উপজাতি যোদ্ধাকে বিয়ে করলেন। সেই বিয়ের অনুষ্ঠান কেমন ছিল! ওই বিয়ের অনুষ্ঠানে সারাহ বেগম ও তার মনের মানুষ গিঙ্কটো ছিলেন সম্পূর্ণ নগ্ন। এ নিয়ে লন্ডনের ডেইলি মেইল প্রকাশ করেছে একটি সচিত্র প্রতিবেদন। তাতে বলাহয়েছে, বাঙালি বংশোদ্ভূত এই বৃটিশ যুবতী চলচ্চিত্র পরিচালক আমাজন জঙ্গলে গিয়েছিলেন ডকুমেন্টারি নির্মাণ করতে। কিন্তু তিনি সেখানে গিয়ে বিয়ে করে বসলেন স্থানীয় উপজাতি এক যোদ্ধাক
স্বপ্ন সবাই দেখি, কোন স্বপ্নের কী অর্থ জেনে নিই

স্বপ্ন সবাই দেখি, কোন স্বপ্নের কী অর্থ জেনে নিই

ebdnews
সত্যি এটা জানতে কার না ইচ্ছে করে? কিন্তু ঘুম ভাঙার পরই কোথায় যেন হারিয়ে যায় সেইসব স্বপ্নগুলো৷ মনেই পড়তে চায় না৷ কিন্তু কিছু স্বপ্ন থাকে, যা আমরা প্রায়ই দেখি৷অনেকে বলেন স্বপ্নের কোনও বাস্তব ভিত্তি নেই, আবার কারওর মতে এটা আমাদের অবচেতন মনের প্রতিফলন৷ স্বপ্ন নিয়ে চলে আসা পুরেনা ব্যাখ্যা আর মনোবিদদের বিশ্লষণেই এই প্রতিদেবন- ১)উপর থেকে পড়ে যাওয়া- অনেকেই স্বপ্নের মধ্যে দেখেন উপর থেকে পড়ে যাচ্ছেন৷ আসলে জীবনে প্রেম, ভালোবাসা, চাকরি, কেরিয়ার, পরিবার, বন্ধু নিয়ে যারা নিরাপত্তাহীনতায় ভোগেন , তারাই এ ধরনের স্বপ্ন দেখেন৷স্বপ্নে উপর থেকে নিচে পড়ে যেতে দেখার আর একটি অর্থ হল কাজে অবনতি। ২)পরীক্ষায় পারছেন না- স্কুল-কলেজের পাট চুকে গিয়েছে অনেকদিন৷ কিন্তু এখনও যদি আপনি পরীক্ষার স্বপ্ন বা পরীক্ষায় লিখতে না পারার স্বপ্ন মাঝেমধ্যেই দেখেন, তাহলে বুঝতে হবে অফিসের চাপ আপনাকে কোথাও না কোথাও মান
গরীব-অসহায় মানুষের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ করেছে উদ্যোগতা ক্লাব

গরীব-অসহায় মানুষের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ করেছে উদ্যোগতা ক্লাব

ebdnews
১৬ই ডিসেম্বর মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে বেলা ১১টায় সীতাকুণ্ড উপজেলার ভাটিয়ারীর ছিন্নমূল মানুষের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ করা হয় । প্রায় এক হাজার মানুষের মাঝে এসব শীতবস্ত্র বিতরণ করা হয়। বিজয় দিবসে একটি ভালো কাজ শিরোনামে এই শীত বস্ত্র বিতরণ করা হয় । শীতবস্ত্র বিতরণের সময় ক্লাবের এর সভাপতি মোঃমামুনুর রহমান, সহ-সভাপতি সানাউল হক, সাধারণ সম্পাদক রিয়াজ উদ্দীন মিনহাজ্ব, যুগ্ন সম্পাদক মেহেদী হাসান, নির্বাহী সদস্য এ.আর চৌধুরী , সাগর, মুরাদ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। উদ্যোগতা ক্লাবের সভাপতি মামুনুর রহমান জানান, আমরা বিজয় দিবসে একটি ভালো কাজ করার প্রত্যয় নিয়ে অসহায় শীতার্থ মানুষগুলোর পাশে দাড়ানোর চেষ্টা করেছি । আমরা সবসময় চায় দেশের অসহায় মানুষহুলো যেন কষ্ট না পায় । সহ-সভাপতি সানাউল হক এর মতে, এই ক্লাবের প্রত্যেক সদস্য নিজ নিজ অবস্থান থেকে এই শীতকালীন বস্ত্র সংগ্রহ ও বিতরণ করতে অক্লান্ত পরিশ্রম করেছেন। কি
রুবেলের জামিনের প্রতিক্রিয়ায় হ্যাপি

রুবেলের জামিনের প্রতিক্রিয়ায় হ্যাপি

ডেস্ক নিউজ
অনেক জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটিয়ে অবশেষে ধর্ষণ মামলার দুই দিন পর জনসমক্ষে এলেন জাতীয় দলের ক্রিকেটার রুবেল হোসেন। সোমবার চার সপ্তাহের জামিন চেয়ে হাইকোর্টে আবেদন করেন তিনি। হাইকোর্ট শুনানি শেষে রুবেলের আবেদন মঞ্জুর করেছেন। সোমবার বিকেল ৫টায় আলাপকালে নায়িকা হ্যাপি রুবেলের জামিনের বিষয়ে প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেন। হ্যাপি বলেন, ‘রুবেল আমাকে আগেই বলেছিল, তুমি মামলা করে আমার সঙ্গে পারবে না। আমার বড় হাত রয়েছে। আন্দালিব রহমান পার্থকে দিয়ে সেই মামলা মুভ করাব। শেখ হেলালের সঙ্গে আমার খাতির আছে, প্রয়োজনে প্রধানমন্ত্রীর ছেলে সজীব ওয়াজেদ জয়কে দিয়ে মামলা ডিসমিস করাব। আদালত আজ রুবেলকে জামিন দিয়েছেন। কিন্তু আমি জানতাম, এই মামলায় কোনো জামিন হয় না। তার পরও সে জামিন পেয়েছে। দেখা যাক কী হয়।’ জামিন সম্পর্কে তিনি বলেন, ‘উচ্চ আদালতের প্রতি আমার শ্রদ্ধা আছে। আমার কাছে যে তথ্যপ্রমাণ রয়েছে, তা দিয়ে আমি লড়াই করে যাব।
অসহায় ও শীতার্থ মানুষের পাশে হকস্ অব সিটিজি

অসহায় ও শীতার্থ মানুষের পাশে হকস্ অব সিটিজি

নিজস্ব প্রতিবেদক
গরীব-অসহায় মানুষের মাঝে শীতকালীন বস্ত্র বিতরণ করেছে নগরীর হকস্ অব সিটিজি নামের তরুণদের একটি সামাজিক সংগঠন।   গত শুক্রবার বেলা ১১টায় সীতাকুণ্ড উপজেলার ভাটিয়ারীর ছিন্নমূল মানুষের মাঝে এসব শীতবস্ত্র বিতরণ করা হয়। প্রায় দুই হাজার মানুষের মাঝে এসব শীতবস্ত্র বিতরণ করা হয়। এর মিডিয়া পার্টনার ছিল অনলাইন নিউজপোর্টাল ইবিডি নিউজ।   শীতবস্ত্র বিতরণের সময় হকস্ অব চিটিজি এর সভাপতি হাসনাত কবির শাকিল, সহ-সভাপতি মিনহাজুল আবিদ, হেড-ইন-চার্জ নায়িম রেহমান, তথ্য-প্রযুক্তি সম্পাদক লাবিব আহমেদ, ব্যবস্থাপক সাদমান ও সাধারণ সম্পাদক রিয়াজ উদ্দিন শিহাব প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।   ক্লাবের সভাপতি হাসনাত কবির ইবিডি নিউজকে বলেন,অনলাইনের বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে আমরা তহবিল সংগ্রহ করেছি। বিশেষ করে লন্ডনে বসবাসরত বাঙালি ব্যারিস্টার তাহমিনা কবির, সামশের চৌধুরী, নগরীর লালখান বাজারের বাসিন
পথ শিশুদের পিকনিক

পথ শিশুদের পিকনিক

ebdnews
মো:মামুনুর রহমান: অসহায় পথশিশুদের স্কুল বর্ণের হাতে খড়ি । সমাজের এসব শিশুরা তেমন কোন সুবিধা পায়না বললেই চলে । গতকাল তাদের স্কুলের বার্র্ষিক পিকনিকের অয়োজন করে স্কুল কতৃপক্ষ । সকাল সকাল কোমলমতি অসহায় শিশুরা বৃষ্টি উপেক্ষা করে বিদ্যালয় প্রাঙ্গনে জড় হতে শুরু করে । বৃষ্টির কারণে নির্দিষ্ট সময়ের চেয়ে ৩০মিনিট পরে বাস ছাড়ে । বাস ছাড়ার সাথে সাথে সবাই বাদভাঙা উল্লাসে ফেটে পড়ে । তাদের আনন্দের সীমা নেই । সবাই বাসের মধ্যে নাচানাচি করে গান করে মাতিয়ে তোলে দেখে মনে হয় স্কুল জীবনে বন্ধুদের সাথে স্কুল পিকনিক যে যাওয়ার আনন্দ । তার থেকে কমই বা কিসের । সকাল ১১টার মধ্যে বাস গিয়ে পৌছে জালালাবাদ মধু বাবার দরবার হলের পাশে । সুশৃঙ্খল ভাবে সবাই বাস থেকে নেমে পড়ে অনুষ্ঠান স্থলেই গিয়ে বাসে পড়ে । কিছুক্ষণ পরেই শুরু হয় খেলাধুলা । স্কুলের শিক্ষক মুমু নাজনিন এবং সাবরিনা পুরো খেলাধুলা পরিচালনা করেন । সকাল গড়িয়ে বিকাল হত

শরীর থেকে ৪২ মুক্তা!

ebdnews
চীনের মধ্যাঞ্চলীয় হুনান প্রদেশে ঝো (৬১) নামের এক ব্যক্তির দেহ থেকে চিকিত্সকেরা অস্ত্রোপচার করে ৪২টি মুক্তা বের করেছেন। ওই ব্যক্তি পায়ের অসহ্য ব্যথা থেকে রক্ষা পেতে শরীরের বিভিন্ন অংশে এই মুক্তাগুলো ঢুকিয়েছিলেন। আজ মঙ্গলবার পিটিআইয়ের খবরে জানানো হয়, নিয়ানলুন অর্থোপেডিকস হাসপাতালের চিকিত্সকেরা ঝোয়ের কোমর, নিতম্ব ও পায়ে ছুরি চালিয়ে মুক্তাগুলো বের করেন। গ্লোবাল টাইমের খবরে বলা হয়েছে, ঝো কয়েক বছর ধরে মেরুদণ্ডের নিম্নাংশ ও পায়ের ব্যথায় ভুগছিলেন। তাঁর এক বন্ধু তাঁকে হুনান প্রদেশের উয়াইয়াং এলাকার এক চিকিত্সকের সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দেন। ওই চিকিত্সক জোয়ের শরীরে ৪২টি মুক্তা ঢুকিয়ে চিকিত্সা করতে বলেন। এই চিকিত্সা পদ্ধতিতে এক আত্মীয় সুস্থ হয়েছেন জানার পর ঝোও ২০১১ সালে এই চিকিত্সা নেন। গত বছর থেকে তিনি পায়ে এত তীব্র ব্যথা অনুভব করেন যে আর হাঁটতে পারছিলেন না। পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর চিকিত্সকেরা তাঁর শরীরে মুক্